মেনু নির্বাচন করুন

কাঞ্চনপুর ইউনিয়নের ইতিহাস

ব্রিটিশ শাসনামলের আনুমানিক ১৯৫৫ সালে প্রথম পশ্চিম বিঘা ও পূর্ব বিঘা চৌধুরীদের অধীনে বর্তমান পশ্চিম বিঘা সহ মোট ১২টি গ্রাম নিয়ে কাঞ্চনপুর ইউনিয়ন গঠিত হয়। ঐ সময়ে ইউনিয়ন এর চেয়ারম্যান কে গ্রাম প্রেসিডেন্ট বলা হত। ১৯৫৭ সালে পাকিস্তান শাসনামলে গ্রাম প্রেসিডেন্ট এর পদকে ইউনিয়ন চেয়ারম্যান পদবী ঘোষণা করা হয়। ১৯৫৯ সালে প্রথম গ্রাম প্রেসিডেন্ট হন তাজ উদ্দিন আহম্মেদ। তারপর পর্যায়ক্রমে সরওয়ার কাদের, ব্রহ্মপাড়া গ্রাম প্রেসিডেন্ট এর দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৭৭ সালে তৎকালীন পাকিস্তান মহকুমা জুরি বোর্ড এর সদস্য কবির হোসেন সরকার প্রথম ইউনিয়ন পরিষদ চেয়াম্যান মনোনীত হন এবং তিনিই মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন সময়ে অত্র ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ছিলেন। ১৯৭৯ এ বাংলাদেশ স্বাধীন হবার পর পরবর্তী সময়ে আবদুল কাদের,ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৮৯ সালে প্রশাসনিক কাজের সুবিধার্থে তৎকালীন প্রশাসক কাঞ্চনপুর ইউনিয়ন থেকে পশ্চিম বিঘা গ্রাম কে পৃথক করে পূর্ব বিঘা নামে আলাদা গ্রাম ভিত্তিক ইউনিয়ন গঠন করা হয়। বর্তমানে ১৫টি ছোট বড় গ্রাম মিলিয়েই কাঞ্চনপুর ইউনিয়ন পরিষদ।

কাঞ্চনপুর ইউনিয়নের নাম নিয়ে দুটি জনশ্রুতি রয়েছে, পুর্বে কাঞ্চনপুর ইউনিয়ন এর অধিকাংশ গ্রামেই হিন্দুদের আধিপত্য ছিল। রাধারমন সিংহ ও আশু সিংহ ছিলেন সুবিল গ্রামের ধনাঢ্য ব্যক্তিদের মধ্যে অন্যতম তারাই প্রথম কাঞ্চনপুর ইউনিয়ন নামের প্রস্তাবকারী ছিলেন। তবে ঐ সময়ে নৌকাই এবং গরুর গাড়ি ছিল কাঞ্চনপুর ইউনিয়ন একমাত্র যোগাযোগ স্থাপনকারী বাহন।